বাংলাদেশ……..পার্ট-৬

১০১) বাংলাদেশের পাদদেশীয় সমভূমি এলাকা কোনটি? রংপুর-দিনাজপুর। ১০২) ১৯৯৭ সালের শৈত্য প্রবাহে ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কত ছিল। ৫.৫০সে.। ১০৩) মধুপুর ও ভাওয়ালের গড় কোথায় অবস্থিত? গাজীপুর, ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইলে। ১০৪) ‘সোপান অঞ্চল’ কী? চত্বর ভূমি। ১০৫) বাংলাদেশের পাহাড় সৃষ্ট হয়েছে কোন্ প্রক্রিয়ায়? প্লেটপেকটোনিক থিওরী অনুযায়ী। ১০৬) বাংলাদেশের পাহাড় অঞ্চলকে কী বলা হয়? টারশিয়ারি পাহাড়। ১০৭) বাংলাদেশের কোন্ জেলা সমুদ্র সমতল থেকে সবচেয়ে উঁচুতে অবস্থিত? দিনাজপুর ১০৮) সমুদ্র সমতল থেকে দিনাজপুরের উঁচ্চতা কত? ৩৭.৫০ মিটার। ১০৯) প্লাইস্টোসিন যুগে কোন মাটি দিয়ে চত্বর ভূমি গঠিত হয়? পুরাতন পলল। ১১০) প্রাচীণকালে নোয়াখালী ও কুমিল্লাকে কী বলা হত? সমতট অঞ্চল। ১১১) বাংলাদেশে আগে সাগর ছিল তার প্রমাণ কী? চুনাপাথরের খনি। ১১২) ‘সোয়াচ অব নো গ্রাউন্ড’ খাদটি কোথায় অবস্থিত? বঙ্গোপসাগরে। ১১৩) বাংলাদেশের নিম্ন অঞ্চলের জেলাসমূহ কিভাবে গঠিত? প্লাবন সমভূমি। ১১৪) দহগ্রাম ছিটমহল কোথায় অবস্থিত ছিল? লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম থানার। ১১৫) দহগ্রামের আয়তন কত? ৩৫ বর্গমাইল। ১১৬) লালমনিরহাট থেকে তিনবিঘা করিডোর-এর দূরত্ব কত? ৮০ মাইল। ১১৭) বাংলাদেশের মৃত্তিকা উৎপত্তি হয়েছে কেমনভাবে? টারশিয়ারী যুগে, প্লাইস্টোসিন যুগের চত্বর ভূমি ও সাম্প্রতিককালের পলল ভূমি থেকে। ১১৮) পাহাড়ী মাটির রাসায়নিক বৈশিষ্ট্য কী? অম্লতা।